মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

কৃষি ও প্রাণী সম্পদ

যদি বলা হয় বাংলাদেশে কত ভাগ লোক কৃষি কাজের সাথে প্রত্যক্ষ বা প্ররখ্য ভাবে জড়িত উওর নিশ্চয় হবে ৮৫% । এই যে বড় একটি জনগয্টি এই পেশার সাথে জড়িত তাদের ব্যাপারে রাষ্ট্র, মিডিয়া, সিভিলসমাজ বা এনজিও কাররিই কোন ভূমিকা তেমন ভাবে উচ্চারিত হয়না।কেনই বা হবে তাদেরতো কোন সমস্যা নেই। রাষ্ট্র, মিডিয়া, সিভিলসমাজ ও এজিও এরা সবাই কর্পোরেট জগতের লোক। এরা সব সময় এসি রুম, এসি গাড়ি বিলাসবহুল জীবন যাপন করে। এদের কাছে ঐ সুদূর গাঁয়ের রহিম করিম হাবিল কাবিল যারা হাড় ভাঙ্গা পরিশ্রম করে ফসল ফলায় সারের জন্য জীবন দেয় কিছু অসাধু বীজ ব্যাবসায়ির জন্য ফলন বিপরজয়ে পড়ে তার ছেলে মিয়েরা টাকার অভাবে স্কুলে যেতে পারে না ইস্ত্রি অসুস্থ হলে ডাক্তার দেখাতে পারেনা এই যে এদের চাপা কান্না তাদের কানের কর্ণ কুহুরে পৌওছেনা। আজ টিভি মিডিয়া সংবাদপত্র খুললেই আমাদের দেশের প্রধান দুদলের ক্ষমতার লড়ায়। এর ফলে হরতাল অবরোধ সহিংসতা আমাদের জীবনকে বিষিয়ে তুলেছে। এক্ষেত্রে ব্যাবসায়ি,পরিবহণ ও অন্যান্য সেক্টরের প্রতিনিধিরা তাদের সমস্যার কথা বলছেন। কিন্তু কৃষকদের পক্ষে কেও কোন কথা বলছেন না। কৃষিকে আজ অবহেলার চোখে দেখা হচ্ছে। কৃষকরা আজ অসহায় তাদের কোন সংঘবদ্ধ প্ল্যাটফর্ম নেই। আজকে আমাদের দেশের কর্ণধাররা দেশে বিদেশে বলেন দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ং সয়ংপুন কিন্তু এ সফলতার পিছনে কার অবদান ছিল? উওর হবে কৃষকরা। তাহলে তাদের ব্যাপারে কথা বলতে আমাদের বাধা কোথায়। তাই আজকে আমাদের ব্রজ্র কন্ঠে আওয়াজ তুলতে হবে কৃষি বান্ধাব রাষ্ট্র, মিডিয়া, সিভিলসমাজ ও এনজিও চাই। আজ আমাদে শ্লোগান হক কৃষক বাচলে দেশ বাচবে।

 

ছবি



Share with :

Facebook Twitter